ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১

এমারেল্ড অয়েলে কোটি কোটি টাকার ভূয়া সম্পদ

২০২৩ নভেম্বর ২৩ ০৯:৩০:৪৭
এমারেল্ড অয়েলে কোটি কোটি টাকার ভূয়া সম্পদ

অর্থ বাণিজ্য প্রতিবেদক : শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজে কোটি কোটি টাকার স্থায়ী সম্পদের সত্যতা নেই। এছাড়া মজুদ পণ্যেরও প্রমাণাদি নেই। যে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ হিসাব মান লঙ্ঘন করেছে।

কোম্পানিটির ২০২২-২৩ অর্থবছরের আর্থিক হিসাব নিরীক্ষায় নিরীক্ষকের প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

নিরীক্ষক জানিয়েছেন, কোম্পানি কর্তৃপক্ষ চলতি বছরের ৩০ জুন ৪৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার স্থায়ী সম্পদ দেখিয়েছে। যার পরিমাণ গত অর্থবছরের শুরুতে ছিল ৪৮ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। কিন্তু এই সম্পদের সত্যতা ও অস্তিত্ব পায়নি নিরীক্ষক। কারন এই বিশাল সম্পদ দেখালো তার কোন রেজিস্টার নেই।

আন্তর্জাতিক হিসাব মান (আইএএস)-৩৬ অনুযায়ি, যেকোনো প্রতিষ্ঠানের ইমপেয়ারম্যান্ট লস হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু কোম্পানিগুলো তা না করে সম্পদ ও মুনাফা বেশি দেখায়। এক্ষেত্রে এমারেল্ড অয়েলও এর ব্যতিক্রম না। এ কোম্পানি কর্তৃপক্ষও স্থায়ী সম্পদে ইমপেয়ারমেন্ট টেস্ট করেনি বলে জানিয়েছেন নিরীক্ষক।

আরও পড়ুন.......আইপিওতে বিএসইসির অবস্থান এখন দূর্বল

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) করপোরেট গভর্নেন্স ফাইন্যান্সিয়াল বিভাগের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, যেকোন কোম্পানির ক্ষেত্রে ইমপেয়ারমেন্ট লস হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু কোম্পানিগুলো গতানুগতিকভাবে তা না করে মুনাফা ও সম্পদ বেশি দেখিয়ে থাকে।

এমারেল্ড অয়েল কর্তৃপক্ষ ২০২২-২৩ অর্থবছরের শেষে বা গত ৩০ জুন ৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার মজুদ পণ্য আছে বলে আর্থিক হিসাবে উল্লেখ করেছে। কিন্তু এর স্বপক্ষে প্রমাণাদির স্বল্পতার কারনে নিরীক্ষক ওই মজুদ পণ্যের সত্যতা পায়নি।

এই কোম্পানি কর্তৃপক্ষ গত ৩০ জুন ডেফার্ড টেক্স দায় হিসাবে ৬ কোটি ৪৬ লাখ টাকা এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৫ লাখ ৬৭ হাজার টাকা ডেফার্ড টেক্স ইনকাম দেখিয়েছে। কিন্তু কোম্পানিটির স্থায়ী সম্পদের সত্যতা না পাওয়ায় ডেফার্ড টেক্স দায় ও ডেফার্ড টেক্স ইনকামের সঠিক হিসাব বের করতে পারেনি নিরীক্ষক।

নিরীক্ষক জানিয়েছেন, কোম্পানিটির ১৩০ কোটি ৪৪ লাখ টাকার দীর্ঘমেয়াদি ঋণ রয়েছে। কিন্তু তারা এই ঋণের বিপরীতে ২০২২-২৩ অর্থবছরে কোন সুদজনিত ব্যয় দেখায়নি।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া এমারেল্ড অয়েলের পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ৫৯ কোটি ৭১ লাখ টাকা। এরমধ্যে ৬১.৭৪ শতাংশ মালিকানা রয়েছে শেয়ারবাজারের বিভিন্ন শ্রেণীর (উদ্যোক্তা/পরিচালক ছাড়া) বিনিয়োগকারীদের হাতে। বুধবার (২২ নভেম্বর) এ কোম্পানিটির শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ১০০.৭০ টাকায়।

পাঠকের মতামত:

শেয়ারবাজার এর সর্বশেষ খবর

শেয়ারবাজার - এর সব খবর



রে