ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১

খান ব্রাদার্সের কারখানায় অন্য কোম্পানির কার্যক্রম

২০২৩ ডিসেম্বর ১৭ ০৯:৩৩:৪৩
খান ব্রাদার্সের কারখানায় অন্য কোম্পানির কার্যক্রম

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ কর্তৃপক্ষ সর্বশেষ ২০২২-২৩ অর্থবছরের আর্থিক হিসাবে ভূয়া মজুদ পণ্য দেখানোসহ বিভিন্ন অনিয়মের আশ্রয় নিয়েছে। যে কোম্পানিটির কারখানায় অন্য ২টি কোম্পানির অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছে নিরীক্ষক। যেগুলো পুরোদমে চলছে। কিন্তু খান ব্রাদার্স চলতি মূলধনের ঘাটতিতে ব্যবসা টিকিয়ে রাখার হূমকিতে পড়েছে।

নিরীক্ষক জানিয়েছেন, খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ কর্তৃপক্ষ আর্থিক হিসাবে ৪৬১.৫০ শতক জমির বিপরীতে ১৪ কোটি ৯ লাখ টাকার সম্পদ দেখিয়েছে ‘ল্যান্ড অ্যান্ড ল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’ হিসেবে। এছাড়া ‘ভবন ও অন্যান্য অবকাঠামো’ হিসেবে ১৫ কোটি ২ লাখ টাকার সম্পদ দেখিয়েছে। কিন্তু এসব সম্পদের সত্যতা যাচাইয়ে কোন ধরনের প্রমাণাদি দিতে পারেনি কোম্পানি কর্তৃপক্ষ।

তবে সরেজমিনে গিয়ে খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগের ওই জমিতে ‘খান ব্রাদার্স ব্যাগ ইন্ডাস্ট্রিজ ও খান ব্রাদার্স মার্বেল অ্যান্ড গ্রানাইট’ কোম্পানির অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছে নিরীক্ষক। যে কোম্পানি দুটি পুরোদমে উৎপাদনে রয়েছে। যেগুলোর জন্যও ভিতরে প্রবেশ ও বাহির হওয়ার জন্য একই রাস্তা রয়েছে। এছাড়া কোম্পানি কর্তৃপক্ষও প্রকৃত মালিকানা বিষয়ে প্রমাণাদি, খাজনা কপি, অনুমোদিত লে আউট প্লান দিতে পারেনি। যে বিষয়ে আর্থিক হিসাবে ভয়াবহ মিথ্যা তথ্য দেওয়া হয়েছে বলে নিরীক্ষক তার মতামত দিয়েছেন।

আরও পড়ুন......

মিথ্যার ভিত্তিতে সেন্ট্রাল ফার্মার আর্থিক হিসাব

বীচ হ্যাচারির আয় ১.৬২ কোটি টাকা, দেখিয়েছে ১১.৮৫ কোটি

আর্থিক হিসাবে ৬০ কোটি টাকার মজুদ পণ্য : সরেজমিনে ৪১ কোটি টাকারই ভূয়া

নিরীক্ষক জানিয়েছেন, খান ব্রাদার্স চলতি মূলধন ঘাটতিতে রয়েছে। যা কোম্পানিটিকে সাবকন্ট্রাক্টের উপর নির্ভরশীলতায় নিয়ে গেছে। যা কোম্পানিটির ভবিষ্যতে ব্যবসা টিকিয়ে রাখাকে হূমকিতে ফেলে দিয়েছে। এই অবস্থায় কোম্পানিটিকে টিকিয়ে রাখতে সঠিক ম্যানেজমেন্ট পরিকল্পনা করার সুপারিশ করেছে নিরীক্ষক।

খান ব্রাদার্সের আর্থিক হিসাবে সাবকন্ট্রাক্ট থেকে ১০ কোটি ৯ লাখ টাকা আয় দেখানো হয়েছে। এরমধ্যে ৭ কোটি ৪৩ লাখ টাকা পাওয়া গেছে। কিন্তু নিরীক্ষক এ পাওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেননি। কারন কোম্পানি কর্তৃপক্ষ ব্যাংকিং চ্যানেলের বাহিরে গিয়ে নগদে লেনদেন করেছে।

২০১৪ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া খান ব্রাদার্সের পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ৯৮ কোটি ৮ লাখ টাকা। এরমধ্যে শেয়ারবাজারের বিভিন্ন শ্রেণীর (উদ্যোক্তা/পরিচালক ব্যতিত) বিনিয়োগকারীদদের মালিকানা ৬৯.৮৭ শতাংশ। কোম্পানিটির শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ৯৫.৫০ টাকায়।

পাঠকের মতামত:

শেয়ারবাজার এর সর্বশেষ খবর

শেয়ারবাজার - এর সব খবর



রে